তারিখ : ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

রাজশাহীতে ছাত্রলীগের হাতে অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত

রাজশাহীতে ছাত্রলীগের হাতে অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত,ক্লাস বর্জন করে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন
[ভালুকা ডট কম : ০৩ নভেম্বর]
রাজশাহী পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দীন আহম্মেদকে গতকাল ক্যাম্পাসের পুকুরে নিক্ষেপের ঘটনার প্রতিবাদে ক্লাস বর্জন করে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।

আজ (রোববার) বেলা ১০টা থেকে নগরীর সপুরা সংলগ্ন পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের মূল ফটকের সামনের রাজশাহী-নওগাঁ মহাসড়কের পাশে অবস্থান নিয়ে তারা এ কর্মসূচি পালন করেন। পরে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন কর্মসূচিতে পলিটেকনিকের শিক্ষকরাও যোগ দেন।

মানববন্ধন শেষে ৫ দফা দাবিতে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবিগুলো হচ্ছে, অভিযুক্ত শিক্ষার্থীদের দ্রুত বিচার করতে হবে, এ ন্যক্কারজনক ঘটনায় জড়িতদের স্থায়ীভাবে ছাত্রত্ব বাতিল করতে হবে, পলিটেকনিকে ছাত্র রাজনীতি বন্ধ করতে হবে, কলেজে বহিরাগত শিক্ষার্থীদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করতে হবে, ক্যাম্পাসে সকলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে, শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে হবে।

এদিকে এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আটক ২৫ জনের মধ্যে থেকে ভিডিও ফুটেজ ও অধ্যক্ষের তথ্যের ভিত্তিতে ৫ জনকে চিহ্নিত করে গ্রেফতার দেখিয়েছে পুলিশ। তারা সবাই ছাত্রলীগের রাজনীতিতে যুক্ত বলে পুলিশ জানিয়েছে।

গতকাল দুপুরে ক্যাম্পাসের মসজিদে জোহরের নামাজ শেষে নিজ কার্যালয়ে ফেরার পথে অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দীন আহম্মেদকে ধরে নিয়ে টেনেহিঁচড়ে পুকুরে ফেলে দেয় ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা। অধ্যক্ষ জানান, বিভিন্ন সময় ছাত্রলীগের ছেলেরা অন্যায় দাবি নিয়ে আসত আমার কাছে। সে সব দাবি না মানায় তারা আমার উপর ক্ষুদ্ধ ছিল। তাদের দাবিগুলো মানার মত থাকে না।

ক্লাশে উপস্থিতি কম থাকায় দুইজন ছাত্রের ফরম পুরণ হয়নি। সেই দুই ছাত্রের ফরম পুরণ করানোর জন্য সকালে কয়েকজন তার কাছে এসেছিল। কিন্তু তিনি বিভাগীয় প্রধানের কাছে যেতে বলেন। এ সময় তারা অধ্যক্ষের সামনে অশালীন মন্তব্য করে। এতে তাদের উপর ক্ষুদ্ধ হন অধ্যক্ষ। দুপুরে নামাজ শেষে অফিসে যাওয়ার সময় কামাল হোসেন সৌরব নামে এক ছাত্রলীগ কর্মী সহ কয়েকজন অধ্যক্ষের পথ আটকে দাঁড়িয়ে পাশে সরে এসে কথা বলতে চায় বলে জানায়। তাকে পুকুর পারের দিকে আসতে বলে। অধ্যক্ষ যেতে না চাইলে তারা তাকে জোর করে ঠেলে নিয়ে গিয়ে পুকুরে ফেলে দেয়।

এক তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় পলিটেকনিক শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক  ঘটনাটিকে অনাকাঙ্ক্ষিত বলে অভিহিত করে এর সাথে ছাত্রলীগের নাম জড়ানোটা  দুঃখজক বলে মন্তব্য করেছেন। ইতোমধ্যে এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পলিটেকনিক শাখা ছাত্রলীগের সব কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে। একই সাথে অভিযুক্ত পলিটেকনিক শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন সৌরভকে বহিষ্কার করা হয়েছে।#





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

শিক্ষাঙ্গন বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ১২২২ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই