তারিখ : ২২ অক্টোবর ২০১৯, মঙ্গলবার

সংবাদ শিরোনাম

বিস্তারিত বিষয়

ভাষা মতিনদের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ন্যাপ'র স্মরণসভা

ভাষা মতিনদের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে ন্যাপ'র স্মরণসভা
[ভালুকা ডট কম : ০৮ অক্টোবর]
মঙ্গলবার নয়াপল্টনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে চীর বিপ্লবী রাজনীতিক ভাষা সৈনিক আবদুল মতিনের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ আয়োজিত প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন ও স্মরণসভায় সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের মহান নেতা ভাষা সৈনিক আবদুল মতিনদের স্বপ্নের শিক্ষাঙ্গন আজ রক্তাক্ত ।

তিনি আরো বলেন, ভাষা মতিনরা দেশের যে শিক্ষাঙ্গন থেকে দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব অর্জন আর মানুষের অধিকার আদায় আন্দোলন করেছেন। আজ সেই শিক্ষাঙ্গনে দেশের পক্ষে মিছিল নয়, আন্দোলন নয়-শুধুমাত্র ফেসবুকে লেখার কারণে সরকার সমর্থিত ছাত্র সংগঠনের নেতা-কর্মীরা মেধাবী ছাত্র ফাহাদকে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। প্রমানিত হলো ভাষা মতিনদের স্বপ্নের গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র আজও প্রতিষ্ঠিত হয় নাই। বাংলা ভাষা এবং স্বাধীন বাংলাদেশের ইতিহাসের সঙ্গে যে কটি নাম ওতপ্রোতভাবে জড়িত ভাষা মতিন তাদের মধ্যে অন্যতম। নির্যাতিত-নিপিড়িত মানুষের অধিকার আদায়ে কঠোর সংগ্রামের মধ্যদিয়েই অতিক্রম করেছেন সারাটা জীবন। তিনি যে বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখতেন তা আজও প্রতিষ্ঠিত হয়নি। আজও বাংলাদেশে একটি শোষণমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠিত হয়নি। মওলানা ভাসানীর ঘনিষ্ঠ অনুসারী ভাষা মতিন রাজনীতি করেছেন দেশ ও মানুষের জন্য। ক্ষমতার মোহ তাকে স্পর্শ করতে পারে নাই।

ন্যাপ মহাসচিব বলেন, আজ যদি ভাষা মতিন থাকতেন তাহলে হয়তো বলতেন, "আবরারের মৃত্যু অহংকারের। তাকে যারা পিটিয়ে মেরেছে, সেই হাতগুলো ঘৃনার। রাষ্ট্র তাদের বিচার করতে ব্যর্থ হলেও প্রকৃতি ওদের ক্ষমা করবে না। ধুকিয়ে ধুকিয়ে মারবে তাদের। আবরার মৃত্যুর আগেও দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কথা বলেছে। দেশবিরোধীদের কাজের প্রতিবাদ করেছে। " আবরারের মত মৃত্যু হবে বলে যারা সারাক্ষণ ঝুজুর ভয় দেখিয়ে জাতিকে দমিয়ে রাখতে চায় তারা আসলেই বোকা। করুণা হয় এই সকল বোকাদের জন্য। দেশপ্রেমিকদের তো মৃত্যু হবেই, শুধু মাধ্যম হয়তো হবে শাসকগোষ্টি। তবে, তাদেরও মনে রাখতে হবে প্রকৃতি তাদের ক্ষমা করবে না, প্রকৃতি সুদে আসলে হিসাব চুকিয়ে প্রতিশোধ নিবে। মানবতাবিরোধী তৎপরতার বিরুদ্ধে রাজনীতির মাধ্যদিয়ে বিদ্রোহের পতাকা ঊর্ধ্বে তুলে ধরেছেন ভাষা মতিন। তিনি স্পষ্টত বলতেন উৎপীড়িতের কান্না না থামা পর্যন্ত, সাম্রাজ্যবাদী ও লুটেরা শক্তি অত্যাচারী স্তব্ধ না হওয়া অবধি তার সংগ্রাম চলবে।

ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া'র সভাপতিত্বে স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল ভুইয়া, মহানগর সভাপতি মো. শহীদুননবী ডাবলু, যুগ্ম সম্পাদক মো. শামিম ভুইয়া, মাহ মো. শাহ আলম প্রমুখ। #





সতর্কীকরণ

সতর্কীকরণ : কলাম বিভাগটি ব্যাক্তির স্বাধীন মত প্রকাশের জন্য,আমরা বিশ্বাস করি ব্যাক্তির কথা বলার পূর্ণ স্বাধীনতায় তাই কলাম বিভাগের লিখা সমূহ এবং যে কোন প্রকারের মন্তব্যর জন্য ভালুকা ডট কম কর্তৃপক্ষ দায়ী নয় । প্রত্যেক ব্যাক্তি তার নিজ দ্বায়ীত্বে তার মন্তব্য বা লিখা প্রকাশের জন্য কর্তৃপক্ষ কে দিচ্ছেন ।

কমেন্ট

রাজনীতি বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

  • ভালুকা ডট কম এর নতুন কাজ আপনার কাছে ভাল লাগছে ?
    ভোট দিয়েছেন ৯২৯ জন
    হ্যাঁ
    না
    মন্তব্য নেই